বাংলা নিউজ পোর্টাল থিম
খেলাধুলা

যে ‘বুড়ো’র কাছে হারল বার্সেলোনা

বয়স হয়ে গেছে ৩৮, এখনো একই উদ্যম আর প্রাণশক্তিতে খেলে যাচ্ছেন সপ্তাহের পর সপ্তাহ। বলা হচ্ছে অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের ‘বুড়ো’ স্ট্রাইকার আরিজ আদুরিজের কথা। কাল তাঁর গোলেই লিগের প্রথম ম্যাচ হেরেছে বার্সেলোনা
বার্সেলোনার বিপক্ষে গোল করার ‘অভ্যাস’টা আদুরিজের নতুন নয়।

২০১৫ সালের স্প্যানিশ সুপার কাপ ফাইনালের কথা মনে আছে? প্রতিদিন আপনি বার্সাকে চার গোল হজম করতে দেখবেন না, সেবার সেই অসাধ্য সাধন করেছিল অ্যাথলেটিক বিলবাও। আর এই অসাধ্য সাধিত হয়েছিল এই আদুরিজের কল্যাণেই। প্রথম লেগে মেসিদের দর্শক বানিয়ে দুর্দান্ত এক হ্যাটট্রিক করেছিলেন তিনি, যা ছিল বার্সার বিপক্ষে এক দশক পর কোনো খেলোয়াড়ের হ্যাটট্রিকের উদাহরণ। দ্বিতীয় লেগে ১-১ গোলে ড্র করা বার্সেলোনা বলতে গেলে এই আদুরিজের জন্যই সেবার সুপার কাপ জেতেনি। কাল এই ‘বুড়ো’ আদুরিজের ঝলক আরও একবার দেখেছে বার্সেলোনা। তাঁর শেষ মুহূর্তের গোলে লিগের প্রথম ম্যাচে বার্সেলোনাকে হারিয়েছে বিলবাও।

বাস্ক অঞ্চলের সান সেবাস্তিয়ানে জন্ম নেওয়া এই স্প্যানিশ স্ট্রাইকার ভ্যালেন্সিয়া, ভায়াদোলিদ, মায়োর্কার মতো ক্লাবে খেললেও বারবার ফিরে গেছেন বিলবাওর টানে। আর সাধারণত নিজের অঞ্চল ছাড়া অন্য কোনো অঞ্চলের খেলোয়াড় না খেলানো বিলবাও-ও বারবার নিজের সন্তানকে বরণ করে নিয়েছে উদারহস্তে। ভিন্ন ভিন্ন সময়ে তিনবার বিলবাওয়ের জার্সি গায়ে জড়ানো আদুরিজ বিলবাওয়ের মূল দলে অভিষিক্ত হন ২০০২ সালে, এই বার্সার বিপক্ষেই। ম্যাচটা ২-০ গোলে হেরে যায় বিলবাও। আদুরিজের মধ্যে দুর্দান্ত প্রতিভা দেখেছিলেন তৎকালীন বিলবাও কোচ, পরে বায়ার্ন ও রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগজয়ী ইয়ুপ হেইঙ্কেস। কিন্তু মৌসুম শেষে চাকরি হারান হেইঙ্কেস, আদুরিজও দলে নিজের জায়গা হারান। ধারে খেলতে চলে যান বার্গোসে। বার্গোস, ভায়াদোলিদ ঘুরে আবার বিলবাওয়ে আসেন আদুরিজ। দুই মৌসুম শেষে আবার চলে যান মায়োর্কা, সেখান থেকে ভ্যালেন্সিয়া ঘুরে আবার ফিরে আসেন বিলবাওতে।

ফার্নান্দো তোরেস, ডেভিড ভিয়া, ফার্নান্দো ইয়োরেন্তে, রবার্তো সোলদাদো, ডিয়েগো কস্তা, আলভারো মোরাতা, আলভারো নেগ্রেদোদের ভিড়ে কখনই স্পেনের মূল স্ট্রাইকার হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারেননি আদুরিজ। একটি ম্যাচের শেষ পনেরো মিনিট খেলার ‘সৌভাগ্য’ হয়েছিল যদিও, ইউরো ২০১২–এর বাছাইপর্বে লিথুনিয়ার বিপক্ষে কোচ ভিসেন্তে দেল বস্কের অধীনে।

এককালে যুবদলে জাভি আলোনসো, মিকেল আরতেতার মতো তারকাদের সঙ্গে খেলা আদুরিজের সেসব সঙ্গীরা এখন কোচ হিসেবে ডাগআউট মাতালেও আদুরিজ এখনো চিরতরুণ। বয়স হলেও পায়ে যে বিন্দুমাত্র মরচে পড়েনি, তার প্রমাণ তো কালকের ম্যাচটাই! বার্সেলোনার বর্তমান কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দে আগে বিলবাওয়ের কোচ ছিলেন, তখন তাঁর প্রিয় শিষ্য ছিলেন আদুরিজ। প্রিয় শিষ্য যে তাঁর মুখের হাসি কেড়ে নেবেন, সেটা ভালভার্দে গতকাল বেশ ভালোই বুঝেছিলেন, ‘বাতাসে ভেসে আসা বল নিয়ন্ত্রণে এনে গোল করার ক্ষেত্রে আদুরিজ অনেক দক্ষ। আমি যখন দেখলাম ডান প্রান্ত থেকে ভেসে আসা ক্রসটায় বাইসাইকেল কিক দেওয়ার জন্য আদুরিজ প্রস্তুতি নিচ্ছে, আমি তখনই বুঝে গিয়েছিলাম ও গোল করেই ছাড়বে।’

আর এই গোলেই ১০ বছর পর লিগে নিজেদের প্রথম ম্যাচ হারল বার্সেলোনা। বুড়ো হাড়ের ভেলকি বুঝি একেই বলে!

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

অভিষেক ম্যাচেই বিধি ভাঙলেন সাইনি

milon rahman

কানাডায় খেলছেন আন্দ্রে রাসেল

milon rahman

মাশরাফির পুনর্বাসন কার্যক্রম ঈদের পর

milon rahman

এখনই মাঠে নামা হচ্ছে না হ্যাজার্ডের

newsbrighth65%

ডমিঙ্গোকে যে কারণে বেছে নিয়েছে বিসিবি

newsbrighth65%

জিদান আজ মাঠে নামবেন কাদের নিয়ে?

newsbrighth65%

Call Now